Friday, November 16, 2018
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন
আ লা উ দ্দি ন হো সে ন                  লা য় ন মোঃ গ নি মি য়া বা বু ল                 জা হি দ হো সে ন র ন জু                 জা হা না রা খা তু ন                  খা য় রু ন নে সা রি মি                 রা ফি আ হা ম্মে দ                 জা হা না রা বু লা                  নি শি ফা র হা না                  র ফি কু ল ই স লা ম                 

বন্ধু ফোরাম


বাবর আলীর রাজনীতির পাঁচফোড়ন-'আপনি ভিলেন,নষ্ট মানুষ'
জাহাঙ্গীর বাবু :
সময় : 2018-11-09 09:18:46

আপনি কোটিপতি,আপনি ক্ষমতাসীন,বেশ বড় বড় পদে পদাসীন,আপনি বিরোধী দলের,আপনি,জ্ঞানী,ডাক্তার,ইঞ্জিনিয়ার,অধ্যাপক,প্রভাষক,কবি,লেখক,সাংবাদিক,বুদ্ধিজীবি,অতি শিক্ষিত বড় মাওলানা,আলেম,সুশীল,আস্তিক,নাস্তিক,
বড় ব্যাবসায়ী, নির্বাচন করেন আর নাই করেন
কিচ্ছু আসে যায়না। আপনার কিচ্ছুর মুল্য নেই, যদি না আপনি নিজ এলাকার মানুষের কল্যানে না আসেন,মানবতার সেবা যদি শুধুই আত্ম-প্রচারের জন্য হয়,আপনি ভন্ড,প্রতারক,আপনার আছে,আপনাকে আল্লাহ অনেক দিয়েছেন,এ জন্য সাংসদ,চেয়ারম্যান  হওয়া জরুরী নয়।
 
দলীয় মতভেদে কিংবা একই দলের হয়ে গ্রুপিং করে নিজেদের ছেলেদের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়ে আপনি আমানুষ প্রমান করলেন। মোটর বাইক কিনে দিয়ে নগদ অর্থ দিয়ে আপনি স্বার্থবাজ প্রমান করলেন।আপনি হলেন এলাকা, সমাজ,দেশ ধ্বংসের হোতা।
 
আপনি যদি কর্মসংস্থান করে দেন স্বাবলম্বী হবার পথ দেখান আপনি মানুষ।জাতি,ধর্ম তোয়াক্কা না করে কাউকে চাকরী,কর্ম দিয়ে সাহায্য করেন আপনি  মানবিক গুনের অধিকারী। দুই চারটা বিয়ে, দু একটা মসজিদে দান করলেই হয়ে গেলো!ক্যান্সারের রোগীর লক্ষ,কোটি টাকার প্রয়োজন আপনার,দশ হাজার,পঞ্চাশ হাজারে কি হবে? সাহায্যের ধরণ হোক পরিকল্পিত।যাতে তার আর কোনদিন সাহায্যের প্রয়োজন না হয়।
 
আমি এলাকায় দেখেছি আওয়ামীলীগের অনেক ছেলেরা চাঁদাবাজি না করে ঠিকাদারী করে।কেউ একা,কেউ কয়েক জনে মিলে ঠিকাদারী করছে যার ফলশ্রুতিতে এরা সবাই স্বাবলম্বী। জনশ্রুতিতে আছে ফরিদপুর গোপালগঞ্জের বেশির ভাগ ঘরে সরকারী চাকরীজিবি। যে যেভাবেই দেখুক আমি মনে করি এই পরিবার গুলো খেয়ে পরে বাঁচছে।যা অন্য সরকার করতে ব্যার্থ হয়েছে। পুরো দেশ না হোক অন্তত একটা এলাকাতো স্বাবলবী হয়েছে।
 
ভালোর সাথে মন্দ থাকবে,থেকে যায়, যারা আবার ক্যাডার পালে।মাস্তান পয়দা করে।দেশ জনগনের ক্ষতির জন্য সরকারী বাহিনীর সাথে মিক্স করে দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকার এই পন্থা স্বৈরাচারীতার পাঁচ ফোঁড়নের এক ফোঁড়ন।
 
 কে শুরু করেছে আর কে এই সব আইটেমের ষোল কলা পুর্ণ করছে সবাই জানে।কে ক্ষমতায়? তা জেনে খেটে খাওয়া মানুষের কি লাভ? ক্ষমতায় গেলেই বিরোধী পক্ষ বা প্রতিপক্ষের তেল বের করা,জেল,জুলুম, হয়রানি,কর্মহীন করা,জমি সম্পত্তি হড়প করা,দৌড়ের উপর রাখা এ দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি। সবাই মিলে দেশ এগিয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও মুল ক্ষমতায় থাকা নিয়েই মুল লড়াই।
 
 মানব সেবা দেশ প্রেম মুখে মুখে কাগজে কলমে,অন্তরে মগজে প্রতিশোধ,প্রতিরোধ,আর পেশি শক্তি যার নাম ক্ষমতা। দলপ্রীতিতো অন্ধমোহ।চেতনাতো এক বর্ণ, গন্ধ যুক্ত  বানিজ্য।হোক ভাষার,হোক মুক্তিযুদ্ধ,হোক স্বাধীনতার, ধর্মের চেতনার বিভাজন,গ্রুপিংতোএখন পাঁচ ফোড়নের অদ্বীতিয় ফোঁড়ন।
 
 আইনী,কানুনী সংস্থার বশীকরণ ক্ষমতায় থাকার শীর্ষে হলেও তৃতীয় ফোঁড়ন। মিথ্যা প্রপাগান্ডা চতুর্থ ফোঁড়ন বলা যায়। পঞ্চম ফোঁড়ন গনতন্ত্রের নিত্য নতুন সংস্করণ,যার শিরোনামে নির্বাচন,বিহাইন্ডে সংবিধানের ধারা উপধারা কাটা ছেড়া।যার নাম ক্ষমতায় থাকার সংস্করণ। ক্ষমাতসীনরা সবাই করে,করেছে কম আর বেশি।
 
  জনগনের বেঁচে থাকার জন্য চাই কর্ম,কর্মসংস্থান, অনুদানের বেঁচে থাকা অস্তিত্বহীন করে।
 
প্রবসীরা দেশের চালিকা শক্তি।নিজের অর্থ খরচ করে দেশের রিজার্ভ বাড়ায়।মিডিয়ার প্রবৃদ্ধির খবরে সরকার মোছে তেল দেয়,টেবিল চাপড়ায়।গার্মেন্টস রফতানী শিল্পের পর প্রবাসী রেমিটেন্স।
 
যাতেপরবাস,প্রবাস  যাত্রীকে সরকারের  বিভিন্ন সংস্থা,ব্যাক্তি পর্য্যায়ের দালাল শ্রেনী কর্তৃক হেনস্তা করা ছাড়া কোন সহযোগীতা নেই।প্রবাসীরা নিজ উদ্যোগেই নিজের, পরিবারের জীবন বাজি রেখে পরিবারের তথা দেশের উন্নয়নে ভুমিকা রাখে।ভাগ্যের নির্মমতায় বিদেশে কর্মহীন হলে সেই প্রবাসীর দেশে কর্ম নেই। যেই প্রবাসী তিন চার লাখ টাকা সেলারী পেয়েছে তাদের মুল্যায়ন বিশ হাজার টাকার বেশি নেই স্বাধীন সার্বভৌম দেশে, বিদেশী কম্পানীগুলো এ দেশে আন্তর্জাতিক ভাবে সেই মানের ইনফ্রাস্কটাকচারাল কাজ করছে। প্রবাসী বেকারদের জন্য কোন সরকারের তেমন উদ্যোগ নেই। অথচ তারাই দেশের জন্য জীবন বাজি রাখে। দেশীয় বেকারদের পাশাপাশি প্রবাসী বেকারদের কর্মসংস্থান করার দরকার সরকারের,ব্যাবসায়ী ধনীদের। কে শুনে কার কথা।
 
অনুদান! সামান্য পাঁচ দশ হাজারের জন্য জালাও পোড়াও,মানুষ খুন ও চলে,যার ক্রীড়ানক ক্ষমতা লিপ্সু দল বা ব্যাক্তি বিশেষ।বিব্রত করতে প্রতিশোধ নিতে ব্যাক্তি বা অন্যদল ও থাকতে পারে এই তালিকায়।
 
 এ সব করে নেতা হবেন,রাজিনীতি করবেন,ক্ষমতায় যাবেন। আড়ালে মানুষের জানমাল নষ্ট করেবেন, সম্মুখে এসে সামান্য চিড়া মুড়ি কয়েকটা টাকা ধরিয়ে আপনি হবেন দানবীর! আসলে বাবর আলীর দৃষ্টিতে আপনি ভিলেন,নষ্ট মানুষ।

এই সংবাদটি 29 বার পঠিত হয়েছে




এই পাতার সর্বাধিক পঠিত খবরসমূহ

না সি মা খা ন

স্ব প ন চ ক্র ব র্ত্তী

স্ব প ন চ ক্র ব র্ত্তী

স্ব প ন চ ক্র ব র্তী

বৃষ্টির গল্প

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter