Wednesday, January 23, 2019
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন
রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানো হয়েছে সংগীতজ্ঞ মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের মরদেহকে                  আজ পদ্মা সেতু‌তে বসা‌নো হ‌য়ে‌ছে সপ্তম স্প্যান                  চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪ মামলার আসামী হেরোইনসহ গ্রেপ্তার                 গৃহবধু সুমী হত্যা মামলায় স্বামীসহ ৪ জনের মৃত্যুদন্ড                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে একসঙ্গে চার শিশু জন্মদানকারী মা’কে প্রশাসনের আর্থিক সহায়তা                 বেগমগঞ্জ-লক্ষ্মীপুর সড়কে ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার ৭ জন নিহত                 অর্থনৈতিক কূটনীতিভিত্তিক পররাষ্ট্রনীতির ওপর জোর দেবে সরকার                  জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন জিএম কাদের                 জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন জিএম কাদের                 এবারের নির্বাচনে বিএনপির মহাপরাজয় হয়েছে                 শিরোমণি কেবলের সাবেক কর্মকর্তা আমজাদের স্ত্রীর ইন্তেকাল                 ধর্ষনের অভিযোগে ন্যাশনাল লাইফ ইনসুরেন্স কোঃ এরিয়া ম্যানেজার কারাগারে                 ঠাকুরগাঁওয়ে খাবারের সাথে নেশাদ্রব্য মিশিয়ে তিনলাখ টাকা চুরি                 আমাদের দায়িত্ব এসেছে সেই গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার-মির্জা ফখরুল                 ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর সীমান্তে ভারতীয় বিএসএফের গুলিতে এক যুবক নিহত                 মৌলভীবাজারের সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১                 তেলিগাতী বাইপাসে ডাকাতি প্রস্তুতকালে এই চক্রের তিন সদস্য আটকঃ ডাকাতির বিভিন্ন অস্ত্র উদ্ধার                 চাঁপাইনবাবগঞ্জে উগ্রবাদী বইসহ জেএমবি’র ১ সদস্য গ্রেপ্তার                 ৭দফা দাবীতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আদিবাসী ফোরামের সংবাদ সম্মেলন                 দৌলতপুরে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরনে বাড়তি ফি ফেরত না দেওয়ায় অভিভাবকরা হতাশ                  ফুুলবাড়ীতে ভুমি মালিকদের সাথে জেলা প্রশাসকের মত বিনিময় সভা                  রাণীনগরে মাদকসহ গ্রেফতার ২                  কালীগঞ্জে প্রকাশ্যে ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য বিক্রয়,সেবনবিধি নিষেধ সম্পর্কিত মতবিনিময় সভা                  টাঙ্গাইলে ট্রাক-লরির মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত                 খুলনার শিরোমণি দক্ষিণপাড়ায় একই বাড়ী থেকে দুটি মটরসাইকেল চুরি                 পাঁচ কোম্পানির বোতল ও জারের পানি ‘মানহীন ও পান উপযোগী নয়’                  ২০১৯ সালের বিশ্ব ইজতেমার নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি                 কলারোয়ায় শীতকালীন বিভিন্ন জাতের তরকারি চাষে ঝুঁকেছে চাষীরা                 চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সিরাজুল হক আর নেই                  ২ পিস্তল,৪ম্যাগজিন,১৪ রাউন্ড গুলি ও ৪৬১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার                 প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক, গীতিকার, সুরকার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল মারা গেছেন                 খুলনার দিঘলীয়া উপজেলা নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মিজানুর রহমান                  শিরোমণি আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপে মারপিটের ঘটনায় আহত ২                 টাঙ্গাইল-৬ আসনের সাবেক এমপি খন্দকার আব্দুল বাতেন আর নেই                 মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে শফিকুর রহমান এমপির আহবান                 জাতীকে মেধাবী এবং যোগ্য হিসেবে গড়ে তুলতে হবে                 সোনামসজিদ মহাসড়ক নিরাপদ করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান: ৯ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা                 সোনামসজিদ মহাসড়ক নিরাপদ করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান: ৯ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা                 বিষবৃক্ষ তামাক চাষের কবলে দৌলতপুরের ফসলি জমি                 শিবগঞ্জ মহাস্থানে সবজির বাজারে ধস! কৃষকের মাথায় হাত                 অর্থআত্মসাত মামলায় সাবেক ফুটবলার কাউসার হামিদকে গ্রেফতার                  মতলব উত্তরে ইজিবাইকের সাথে উড়না পেঁচিয়ে শিশুর মৃত্যু                 মন্ত্রণালয়ে ঝুলে আছে মজনু মিয়ার স্বীকৃতি                  চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৬শ মুক্তিযোদ্ধার মাঝে কম্বল বিতরণ                 মৌলভীবাজারে ট্রেনে কাটা পড়ে মহিলার মৃত্যু                 খুলনার আটরায় অস্ত্রের মুখে বেধে ডাকাতির ঘটনায় ১৫দিনেও মালামাল উদ্ধার হয়নি                 বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আওয়ালের ইন্তেকাল                 কলারোয়ার সবচেয়ে বড় খেঁজুর গুড়ের জমজমাট হাট খোরদো বাজার                 বরগুনায় শিক্ষক কর্তৃক ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষন মূমূর্ষ অবস্থায় বরিশাল শেবাচিমে প্রেরণ                 চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৬ জনের আ’লীগের মনোনয়ন ফরম ক্রয় ও জমাদান                 পাইকগাছা বাস-নছিমন সংঘর্ষে শিশু নিহত : পিতা ও চাচা গুরুতর আহত                 আবু মোজাফফর মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব চৌধুরী নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন                 ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ছাত্রলীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে র‌্যালী ও সাবেক ছাত্রনেতাদের গণসংবর্ধনা                 চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের পথে রয়েছেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ                 দিনাজপুরে প্রাণীখেকো বা মাংসাশী উদ্ভিদের সন্ধান                 রাজধানীতে ৬ষ্ঠ দিনের মতো চলছে ট্রাফিক শৃঙ্খলা কার্যক্রম                 আজ শহীদ আসাদ দিবস                

দেশের সংবাদ


হারিয়ে যেতে বসেছে গৃহবধুদের সাধের ‌‌‌‌‌‌ঢেঁকি
তোফায়েল হোসেন জাকির, গাইবান্ধা: :
সময় : 2018-11-09 21:36:55

চিরায়ত বাংলার হারিয়ে যাওয়া সেই ইতিহাস ঐতিহ্যেরই একটি অংশ হচ্ছে আমাদের অতীতের বহুল ব্যবহৃত নিত্য প্রয়োজনীয় সমাজ সংস্কৃতির অংশ অধুনালুপ্ত ‘‘ঢেকি’’ শিল্প।

আগেকার যুগে গাইবান্ধা জেলার  প্রায় প্রত্যেকটি বাড়িতেই ধান বানার জন্য ঢেঁকি থাকতো। জেলায় বর্তমানে নিতান্ত অজো পাড়া গায়ের কোথাও কোথাও হয়ত ঢেঁকি থাকতেও পারে, তবে এসবের ব্যবহার প্রায় বিলুপ্তই বলা চলে। ঢেঁকি ছাটা চাউলের কদর এখনও কমেনি কারণ এ চাউলের ভাতের মজাই আলাদা। ঢেঁকি ছাটা চাউলের উপরের আবরণ বা খোসা অন্নু থাকে যাতে প্রচুর পরিমান ভিটামিন রয়েছে।

গাইবান্ধার ঢেঁকি শিল্প বাংলার  প্রাচীন গ্রামীণ ঐতিহ্যের একটি গুরুত্বপুর্ণ অংশ। এক সময়    গ্রাম গঞ্জসহ সর্বত্র ধান ভাঙ্গা, চাল তৈরি, গুড়ি কোটা, চিড়া তৈরি, মশলাপাতি ভাঙ্গানোসহ বিভিন্ন কাজের জন্য ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হত চিরচেনা ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকি। তখন এটা  গ্রামীণ জীবন ও সংস্কৃতির সাথে জড়িত ছিল ওঁৎপ্রোতভাবে। অনেকে কুটির শিল্প তথা পেশা হিসেবেও ঢেঁকিতে ধান বানতেন। ঢেঁকি চালাতে সাধারণত দুজন লোকের প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে মহিলারাই চালাতেন তাদের সাধের ঢেঁকি। একজন ছিয়া সংযুক্ত যা বড় কাটের সাথে লাগানো থাকে তার এক প্রান্তে উঠে যার পাশে হাত দিয়ে ধরার নির্দিষ্ট খুটি ও লটকন থাকে সর্বশক্তি প্রয়োগ করে পা দিয়ে চাপ দিতে হয় আবার ছাড়তে হয়।

অপরজন নির্দিষ্ট গর্তে যেখানে ছিয়ার আঘাতে চাল থেকে ধান বের হয় সেখানে সতর্কতার সাথে ধান দিতে হয় আবার প্রতি আঘাতের পর পর ধান নাড়াচড়া করে উল্টে পাল্টে দিতে হয় যাতে সবগুলোতে আঘাত লাগে। শেষ হলে বা গর্ত পরিপূর্ণ হয়ে গেলে এগুলো তুলে আবার নতুন ধান দিতে হয়। আবার ধান ভাঙ্গা ও চিরাকুটার বিভিন্ন প্রবচনও বিভিন্ন জায়গায় শুনা যেত যেমন ‘‘চিরা কুটি, বারা বানি, হতিনে করইন কানাকানি, জামাই আইলে ধরইন বেশ, হড়ির জ্বালায় পরান শেষ’’।

আমাদের দেশে সত্তরের দশকে সর্বপ্রথম রাইসমিল বা যান্ত্রিক ধান থেকে চাল বের করার কল বা মেশিন এর আবির্ভাব হয়। তখন থেকেই ঢেঁকির প্রয়োজনীয়তা ক্রমান্বয়ে হ্রাস পেতে থাকে। এক সময় সারা দেশে বার মাসে তের পার্বণ পালিত হত। গ্রামে গঞ্জে একটার পর একটা উৎসব লেগেই থাকত। হেমন্ত উৎসব, পৌষ পার্বণ, বসন্ত উৎসব, নববর্ষ, বিবাহ উৎসব, কনের বাড়ীতে আম কাঠলী প্রদানের সময় হাতের তৈরী রুটি পিঠা তৈরির উৎসব, হিন্দুদের পূজা, মেলা সহ হরেক রকমের অনুষ্ঠানের আয়োজন হত বা এখনও হচ্ছে। এসব উৎসবে পিঠা পায়েস সন্দেস ইত্যাদি তৈরির ধুম পড়ে যেত। আর এসব তৈরীর মূল উপকরণ হচ্ছে চালের গুড়ি। চালের গুড়ি তৈরীর জন্য অতীতে ঢেকি বা গাইল ছিয়ার আশ্রয় নেয়া হত। ঈদ বা উৎসবের সময় ঘনীভুত হয়ে এলে প্রত্যেক বাড়ীতেই ঢেঁকি ও গাইল ছিয়ার ছন্দময় শব্দ শুনেই আন্দাজ করা যেত ঈদ বা উৎসব এসেছে।

 গ্রাম বাংলার সৌখিন মহিলারা চালের গুড়ি দিয়ে চই পিঠা, চিতল পিঠা, তেল পিঠ্, সিদ্ধ পিঠা, ঢুপি পিঠা, রুটি পিঠা, ঝুরি পিঠা, চুঙ্গা পিঠা, তালের পিঠা, পাড়া পিঠা, পাটি বলা, হান্দেস, নুনগরা-গড়গড়া পিঠাসহ তৈরী করতেন হরেক রকমের পিঠা। কিন্তু বর্তমান আধুনিক এ যান্ত্রিক যুগে বিভিন্ন অনুষ্ঠান উৎসবে আর অতীতের মতো জৌলুস নেই। উৎসবগুলো আজকাল একমাত্র  প্রথা বা রেওয়াজ হয়ে দাড়িয়েছে।

একটা সময় ছিল বড় গৃহস্থ বা কৃষকের ঘরে অবসর সময়ে বা রাতের অধিকাংশ সময়ই ঢেকিতে বা গাইল ছিয়ার মাধ্যমে ধান বানার কাজ করতে হতো। ধান বানতে বানতে অনেক মহিলার হাতে ফুসকা পড়ে যেত। এভাবে ফুসকা পড়তে পড়তে হাতে কড় পড়েও যেত। গরীব মহিলারা বা গৃহ পরিচারিকারা এক আধসের চাল বা ধান পারিশ্রমিকের মাধ্যমে কেহবা শুধু পেটপুরে খাবার বিনিময়ে ধনীদের ঘরে চাল কুটার কাজে নিয়োজিত থাকতো। যে গৃহস্থ যতো বেশি ধান বা চাল উৎপাদন করে বিক্রয় করতে পারতেন তিনিই এলাকায় ততো বড়ো ধনী হিসেবেই খ্যাতি অর্জন করতেন। তাই বড়ো বড়ো গৃহস্থের বাড়ীতে ঢেকিতে চালা বানার আওয়াজ তথা ঢেকুর ঢেকুর শব্দ শুনা যেত হরদম।

কালের বিবর্তনে হারিয়ে যেতে বসেছে ঢেঁকির ছন্দময় শব্দ। এখন শুধু চাল নয় মশলাপাতিও মেশিনের মাধ্যমে কুটানো হয়। মহিলাদের আরামের পরিধি বেড়েছে, বেড়েছে আধুনিকতা ও আধুনিক যান্ত্রিক জীবন যাপন। গ্রামের দু এক বাড়ীতে ঢেঁকি ও গাইল ছিয়ার অস্তিত্ব থাকলেও এর ব্যবহার নেই বললেই চলে। অমাদের পরবর্তী প্রজন্ম হয়তো যাদুঘরে গিয়ে জানতে হবে ঢেঁকি কী এবং এর মাধ্যমে কোন ধরনের কাজ করা হতো।

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter