Monday, December 17, 2018
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন
একনাগাড়ে বসে কাজ করা, বাড়ছে হাড়ের সমস্যা সহজে সমাধানের উপায়                 বরেণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেন আর নেই                 এমন বেশ কিছু খাবার বা পানীয় আছে যেগুলি প্রতিদিনের ডায়েটে রাখতে পারলে চেহারায় বয়সের ছাপ পড়বে না                  নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় লো-ফ্যাট দুধ ও অন্যান্য দুগ্ধজাত সামগ্রী গ্রহণ করলে ওজন তো কমেই, শরীরও ভিতর থেকে সুস্থ হয়                 গ্রহ দোষ না থাকলেও জীবনে বাধা বিপত্তি আসতে পারে,হাতের রেখাই বলে দেবে সেটা                 

বাহারি


সবাই পৃথিবীতে সুস্থ থাকতে চায়,ছয়টি টিপস মেনে চলতে পারেন
সকালের আলো প্রতিবেদক :
সময় : 2018-09-18 18:12:54

সবাই পৃথিবীতে সুস্থ থাকতে চায়। কিন্তু অনেকেই সুস্থ জীবন যাপন করতে পারেন না। সুন্দর আর সুস্থ জীবনের চাবিকাঠি হলো ভালো খাওয়া আর পর্যাপ্ত ব্যায়াম করা। দুইয়ের ভারসাম্য বজায় রাখা প্রয়োজন। যে কোনও একটি কম বেশি হলেই দেখা দিতে পারে সমস্যা। সুতরাং সুস্থ থাকতে ভালো খাবারের পাশাপাশি শরীর চর্চাতেও ততখানিই জোর দিতে হবে। আর সুস্থ থাকার জন্য ছয়টি টিপস মেনে চলতে পারেন। নিম্নে তা তুলে ধরা হলো-

ধৈর্য্য ধরে খান-
যখন খিদে পাচ্ছে তখন খাচ্ছেন নাকি যখন ইচ্ছে হচ্ছে তখন খাচ্ছেন এই দুইয়ের পার্থক্য করা খুব দরকার। যখন প্রচণ্ড চাপের মধ্যে রয়েছেন বা রেগে আছেন বা যদি খুব আনন্দেও থাকেন তখন খাবার থেকে সতর্ক থাকুন। এ সময় আপনি অনিয়ন্ত্রিতভাবে খেয়ে ফেলেন। খাবার সময় টিভি দেখা বা মোবাইল ঘাঁটা বন্ধ করুন। মন দিন খাবার খান। কী খাচ্ছেন তাতে মনোনিবেশ না করলে অধিক খেয়ে ফেলবেন। অতিরিক্ত খাবার অভ্যাস পরিহার করতে হবে।

সময়সূচি মেনে ব্যায়াম-
আপনি বারবার ব্যায়ামের গুরুত্ব সম্পর্কে শুনেছেন কারণ নিয়মিত ব্যায়াম শুধু শরীরের জন্যই উপকারী নয়, মনের জন্যও উপকারী। ভালো থাকার হরমোনগুলির প্রবাহ বাড়ায় নিয়মিত ব্যায়াম। যেমনভাবে নিজের কাজ, মিটিং বা অন্যান্য প্রয়োজনের জন্য সময় ঠিক করেন তেমনই ব্যায়ামের জন্যও সময় বের করুন। সঠিকভাবে ব্যায়াম করতে পারলে আপনার স্বাস্থ্য ও মন ভালো থাকবে।

খাবার বাদ দেবেন না-
ওজন কমানোর তাড়াহুড়োয় খাবার এড়িয়ে যাবেন না। এতে শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টি যেমন শরীরে যাবে না তেমনই আপনার নানান শারীরিক জটিলতার কারণও হয়ে উঠবে। এই খাবার না খাওয়ার অভ্যাসের কারণে আপনি বড় ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন। সবজি আর নিয়ন্ত্রিত শর্করার মাত্রা বজায় রাখুন খাদ্য তালিকায় নিয়মিতভাবে।

অন্য পানীয়ের বদলে জল খান-
সান্ধ্যভোজের সঙ্গে বা মধ্যাহ্নভোজের সঙ্গে জ্যুস বা সোডা পান করতে ভালো লাগে। তবে চেষ্টা করুন সোডা বা জ্যুসের বদলে পানি পান করতে। পানির উপকারিতা অনেক। কোনও রকম ক্যালোরির অদলবদল না ঘটিয়ে পানি আপনাকে রাখবে সতেজ। তাই বলা যায়, সুস্থ থাকার জন্য পানির বিকল্প নেই।

কিছু খাবার বাদ দিন-
নানান জাঙ্কফুড এবং চকলেটের জন্য লোভ হওয়া স্বাভাবিক। মনে রাখবেন সুস্থ জীবনযাত্রা চালাতে গেলে মাঝেমাঝে কিছু জিনিস বাদ দেওয়া ভালো। কোনও বিশেষ উপলক্ষ্যে খান, তবে কেবল উপলক্ষ্যেই খান। এ ধরনের খাবার পরিহার করতে পারলে আপনার সুস্থ থাকার নিশ্চয়তা বাড়বে কয়েকগুণ।

অংশ নিয়ন্ত্রণ-
ডিনার টেবিলে বসে সব কিছুই চেখে দেখা ভালো ব্যাপার। তবে মনে রাখুন, সব চেখেই দেখুন লোভে পড়ে বেশি খেয়ে নেবেন না। কতটা খাচ্ছেন তার ওপরেই কিন্তু শরীরের অনেক বিষয় নির্ভর করে থাকে। এই ছয়টি নিয়ম মানলে আপনি বলা যায়, আপনি সুস্থ থাকেবেন।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি।

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter