Wednesday, October 17, 2018
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চার দিনের সফরে রিয়াদে পৌঁছেছেন                 সাংবিধানিকভাবে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য করণীয় সব কিছুই করবে নির্বাচন কমিশন                 যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রায়ের দিন ধার্য করা বেআইনি                 বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট থেকে বেরিয়ে গেল ন্যাপ-এনডিপি                 গণমাধ্যম সম্পর্কে দুটি আইনের খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা                 ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সবাই নিজেদের অধিকার নিয়ে মাথা উঁচু করে বসবাস করবে                 নিসচা টঙ্গীবাড়ী শাখার উদ্যোগে পরিবহণ শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ ও সনদ বিতরণ                  মাধবদী ও শেখেরচরের জঙ্গি আস্তানায় সোয়াত                 সৌদির সঙ্গে প্রতিরক্ষা ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে দুটি সমঝোতা স্মারক সই হতে যাচ্ছে                 কামাল হোসেন গংরা খুনিদের সাথে ঐক্য করেছে- প্রধানমন্ত্রী                 আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে প্রথম পর্যায়ে ৮৪ হাজার ইভিএম কিনতে চায় ইসি                 স্বপ্নের পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হলে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ১০ শতাংশে উন্নীত হবে                  মাওয়া গোলচত্বরে পদ্মা সেতুর নামফলক ও রেলপ্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী                 

মূল সংবাদ


বহুল আলোচিত একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার আসামিরা কে কোথায়?
সকালের আলো প্রতিবেদক :
সময় : 2018-10-10 08:13:06

তারেক রহমানসহ একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার দু’মামলায় ৪৯ আসামির মধ্যে  ১৮ আসামি এখনও বিদেশে পলাতক। এদের মধ্যে তারেক রহমান ও হারিছ চৌধুরী রয়েছেন যুক্তরাজ্যে। বর্বরোচিত এ’হামলার মামলায় পলাতক আসামিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে নানা পর্যায়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার।

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় ৫২ জনকে আসামি করে বিস্ফোরক ও হত্যার দু’টি মামলা করা হয়। এদের মধ্যে এই মামলার বিচার চলাকালে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি আব্দুল হান্নান ও শরীফ শাহেদুল আলমের ফাঁসি হয় অন্য মামলায়। বাকি ৪৯ আসামির মধ্যে ৩১ জন কারাগারে।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের মন্ত্রী এমপিসহ ১৮আসামি বিভিন্ন দেশে পলাতক রয়েছেন। পলাতকদের মধ্যে তারেক রহমান ও হারিছ চৌধুরী যুক্তরাজ্যে, মোফাজ্জল হোসেইন কায়কোবাদ ও হরকাতুল জিহাদ নেতা জাহাঙ্গীর বদর সংযুক্ত আরব আমিরাতে, তৎকালীন ডিজিএফআই’র কর্মকর্তা এটিএম আমিন যুক্তরাষ্ট্রে, আরেক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জোয়ারদার কানাডায় রয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়। এছাড়া, মাওলানা তাজউদ্দিন ও তার ভাই বাবু ওরফে রাতুল বাবু দক্ষিণ আফ্রিকায়, পরিবহন ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হানিফের অবস্থান থাইল্যান্ডে। এই ঘটনার ঠিক দু’বছর পর ভারতে অস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ ধরা পরে বর্তমানে দেশটির তিহার জেলে বন্দি আছে দু’ভাই মোরসালিন ও মুত্তাকিন।

পলাতক হরকাতুল জিহাদ নেতা শফিকুর রহমান, আব্দুল হাই, দেলোয়ার হোসেন জোবায়ের ওরফে লিটন, খলিলুর রহমান ও ইকবাল এবং পুলিশ কর্মকর্তা খান সাঈদ হাসান ও ওবায়দুর রহমানের অবস্থান সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য নেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে।

পলাতক সকল আসামিদের ইন্টারপোল ও কূটনৈতিক আলোচনার মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানান রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা।

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় ২০০৮ সালে ২২ জনকে আসামি করে প্রথম অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি। ২০১১ সালের আরও ৩০ জনকে আসামি করে সম্পূরক অভিযোগপত্র জমা দেয়া হয়। পরের বছর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে বিচার কাজ শুরু হয়। মামলার ৪৯১ জন সাক্ষীর মধ্যে সাক্ষ্য দিয়েছেন ২২৫ জন। সাফাই সাক্ষ্য দিয়েছেন ২০ জন। আর আসামিদের মধ্যে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ১৩ জন।

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter