Friday, March 22, 2019
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন
কোন উন্নয়ন প্রকল্পের কারণে যেন সাধারণ মানুষের কষ্ট না হয় সেদিকে নজর রাখতে হবে                 চলমান রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান ও প্রত্যাবাসনে চীনকে সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী                 এএসপি পদমর্যাদার ৫৯ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে                 বাঘাইছড়িতে ব্রাশফায়ারে নিহতদের পরিবার পাবে সাড়ে ৫ লাখ করে টাকা                  দেশে অতিদরিদ্র বলে কিছু থাকবে না জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী                  বাস চাপায় নিহত আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের                 সাফল্যের পেছনে না ছুটে কর্মের পেছনে ছুটবে,অন্যায় ও অসৎ পথের যে-কোনো অর্জন ক্ষণস্থায়ী                  'বাঘাইছড়িতে নিরাপত্তার ঘাটতি ছিল না’-সিইসি                  বাংলাদেশের মানুষের বার্ষিক মাথাপিছু আয় এখন ১ হাজার ৯০৯ ডলার                

মূল সংবাদ


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ‘রাজ চালাকির' নির্বাচন বলে মন্তব্য করেছেন ড. কামাল হোসেন
সকালের আলো প্রতিবেদক :
সময় : 2019-01-11 09:18:20

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি), একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ‘রাজ চালাকির' নির্বাচন বলে মন্তব্য করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বেঁচে থাকলে বলতেন, তোমরা রাজ চালাকি থেকে বিরত থাক। রাজ চালাকির কারণেই আমরা রাজনীতি থেকে সরে যাচ্ছি।

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় ড. কামাল হোসেন এই মন্তব্য করেন। বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে গণফোরাম।

ড. কামাল হোসেন বলেন, কোনো সুস্থ মানুষ দেশকে সংকটে ফেলতে পারেন না। কিভাবে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করা যায়, তার জন্য জাতীয় সংলাপ করা হোক। জাতীয় সংলাপের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক সংবিধানের মধ্যে থেকে কীভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন করা যায়।

গণফোরাম সভাপতি বলেন, আমি সরলভাবে বলেছিলাম, সকাল-সকাল কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিন এবং কেন্দ্র পাহারা দিন। কিন্তু ভোট তো রাতেই হয়ে গেছে। ভারসাম্যহীন ছাড়া কোনও সুস্থ মানুষের পক্ষে তথাকথিত নির্বাচন করা সম্ভব নয়।

কামাল হোসেন বলেন, সত্যি খুব দুঃখ লাগে। ৩০ ডিসেম্বর যে ঘটনাটা, সেটা স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর এটা দেখতে হচ্ছে। এটা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। এটা তো হবার কথা না। ৪৮ বছর পরে এটা কেন হবে?

 তিনি বলেন, যেভাবে হলো, আমরা কেউ টেরও পেলাম না, যে আমাদের ভোট হয়ে যাচ্ছে। এটা কেন এভাবে করতে হবে? এরকম অস্বাভাবিক কাজ কেন হচ্ছে? এর থেকে ঘোষণা দিয়ে দেন- থার্ড টার্মের জন্য একজন প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেছেন, তিনশ সদস্য সংসদ সদস্য হয়ে গেছেন।

নির্বাচন খেলা নাকি প্রশ্ন রেখে গণফোরাম সভাপতি বলেন, ১৭ কোটি মানুষকে নিয়ে কি খেলা করা যায়? রাষ্ট্র নিয়ে এভাবে খেলা করা চলে না। যারা এসব করছেন, তারা না বুঝে করছেন। আমি মনে করি, মানসিকভাবে ভারসাম্য না হারালে কেউ এসব করতে পারে না।

জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব এক বিষয় নয়। বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা সমর্থক, এটাকে বাদ দিয়ে আরেকটা উপলব্ধি করা যাবে না। তিনিই দেশের স্থপতি।

৩০ ডিসেম্বর অতি ক্ষমতার লোভে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করে রব বলেন, সারাদেশে নারীদের যেভাবে ধর্ষণ করা হয়েছে, নোয়াখালীর সুবর্ণচরে করা হয়েছে, মানুষের কণ্ঠ রুদ্ধ, বিবেক ক্ষত-বিক্ষত। পৃথিবীর ইতিহাসে এই ধরনের বর্বর, উলঙ্গ ভোট ডাকাতির নির্বাচন আর কোথাও হয়েছে বলে আমি শুনিনি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা যদি দল ও ব্যক্তির ক্ষমতা হয়, সেটা জনগণ চায় না।

গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী বলেন, আজকে আওয়ামী লীগ প্রতিদিন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করছে, তার আদর্শকে হত্যা করছে, সংবিধানকে হত্যা করছে। মুখে অনর্গল মিথ্যাচারে মানুষকে প্রতারণা করছে। সর্বশেষ যে নির্বাচন হয়ে গেলো, সেটা নির্বাচন বলবেন না নির্যাতন বলবেন? নাকি ১৭ কোটি মানুষের সঙ্গে প্রতারণা।

আলোচনায় আরো অংশ নেন মোস্তফা মহসিন মন্টু, মফিজুল ইসলাম কামাল, অধ্যাপক আবু সাইয়ীদ, আমসা আমীন, মোকাব্বির খান।

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter